সৈয়দ আশরাফ স্যার এর আজ মৃত্যুবার্ষিকী

সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে কঠিন সময়গুলোতে আমাদের দলের বৈতরণী পাড় করতে নৌকার দূর্যোগের মাঝি হিসেবে শক্ত হাতে হাল ধরে ছিলেন। কঠিন সময়ে দলকে দুই বার ক্ষমতায় আনতে নেত্রীর নির্দেশে কাজ করেছেন। এই মানুষটিকে পিতৃ পরিচয় এবং দলের সাধারণ সম্পাদকের পরিচয়ের বাইরেও আওয়ামী লীগের ইতিহাসে আজীবন স্মরণ করা হবে তার দর্শনের জন্য, তার জীবনাচরণের জন্য, এবং জননেত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক নেতৃত্বের প্রশ্নে কঠিন সময়ে অবিচল আস্থা রাখার জন্য। অনলবর্ষী ভাষন নয়, হৃদয়গ্রাহী অল্প কথায় তার চিন্তার জানান দিতেন। সর্বশেষ বাংলাদেশের রাজনৈতিক ইতিহাসে তিনি একটি পদচিহ্ন রেখে গিয়েছিলেন, আওয়ামী লীগ কে সংজ্ঞায়িত করে। বলেছিলেন আওয়ামী লীগ একটি অনুভুতির নাম। এই দলের লক্ষ কোটি কর্মী সমর্থক তাকে আজীবন মনে রাখবেন। বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা আমৃত্যু এই মানুষটিকে মন্ত্রী করে সম্মানিত করে রেখেছিলেন। তার অকাল প্রয়ানে বাংলাদেশের রাজনীতির অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে, আওয়ামী লীগের তো বটেই। আমার সৌভাগ্য হয়েছিলো নেত্রীর নির্দেশে এই মানুষটির মরদেহ নিয়ে কিশোরগঞ্জ আর ময়মনসিংহে জানাযা পড়তে যাওয়ার। সাধারণ মানুষের আবেগ আমরা সেদিন দেখেছিলাম। বাংলাদেশের খেটে-খাওয়া সাধারণ মানুষগুলো এখনো দুর্বৃত্তায়ন মূক্ত রাজনীতি প্রত্যাশা করে, সদালাপী আত্মঅহমিকা মুক্ত রাজনীতিবিদদের এখনো ভালোবাসেন। আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সৈয়দ আশরাফদের মত রাজনীতিবিদদের ধারন করা ও মূল্যায়ন করার সুযোগটা ধীরে ধীরে খুব কমে যাচ্ছে কারণ তাদের মত রাজনীতিবিদ আমাদের ছেড়ে চলে যাচ্ছেন। তবুও আমরা স্বপ্ন দেখি, কারণ বঙ্গবন্ধুর কন্যা বাংলাদেশের সাধারন মানুষের আশা আকাঙ্ক্ষাকে বাস্তবে রূপ দেয়ার স্বপ্ন সারথি, জননেত্রী শেখ হাসিনা সেই রাজনীতিকেই ধারণ করেন, মূল্যায়ন করেন, যা এই আদর্শিক রাজনৈতিক ব্যক্তিরা করে গেছেন।

Views All Time
Views All Time
16
Views Today
Views Today
1

Comments

comments

Author: cinemanewsbd

রিয়াদ তানভির রাজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *