শুভ জন্মদিন শাবনাজ

“শুভ জন্মদিন শাবনাজ”
‘আশির দশকের মতো নব্বই দশকেও যখন শাবানা ববিতা রোজিনা সুনেত্রা দিতি সুচরিতা চম্পারা পর্দা কাঁপাচ্ছেন, দিচ্ছেন একের পর এক হিট সুপার হিট ছবি, দর্শকরাও ভীড় করছেন সিনেমা হলে, তবে তারপরও কিসের যেনো এক শুন্যতা কাজ করছিলো দর্শকদের মনে, একই ধরনের গৎ বাঁধা কাহিনী আর একই মুখ বারবার দেখতে দেখতে যখন আমার মতো আরো বহু দর্শক ক্লান্ত ঠিক তখনই চলচ্চিত্রের সেই শুন্যতা পূরন করতে আসলো স্নিগ্ধ এক কিশোরীর সুন্দর একটি মুখ, নাম তার শাবনাজ, যার পারিবারিক নাম ছিলো সাবরিনা তানিয়া, বাংলা চলচ্চিত্রের বহু জনপ্রিয় অভিনেতা ও অভিনেত্রীর (রহমান,শবনম,শাবানা) আবিস্কারক পরিচালক মরহুম এহতেশাম সাহেব তার ‘চাঁদনী'(০৪/১০/১৯৯১) ছবির মাধ্যমে নিয়ে এলেন শাবনাজ নামের এক উচ্ছল তরুনী-কে সাথে নিয়ে এলেন আরেক তরুন সুর্দশন নায়ক নাঈম-কে, এফ ডিসির চারদেয়ালের ঘেরা পরিচিত সব দৃষ্য থেকে বেরিয়ে এসে সিলেটের জাফলংএর মনোমুগ্ধকর প্রাকৃতিক সৌর্দয্যে চিত্রায়িত সম্পূর্ণ টিন এজ রোমান্টিক ছবি ‘চাঁদনী’ যেনো ঝড় তুললো সারাদেশের সিনেমা হল গুলোতে, একেবারে তরুন থেকে মধ্যসারীর দর্শকরা যেনো হুমড়ি খেয়ে পড়লো ছবিটি দেখার জন্যে, ছবি হয়ে গেলো বাম্পার হিট, এদিকে ততদিনে সব দর্শকদের মন কেড়ে নিয়েছে ছবির নতুন দুই মুখ শাবনাজ/নাঈম, শুরু হলো বাংলা চলচ্চিত্রে নতুনদের জোয়ার, আসলে শাবনাজ নাঈমদের তূমুল জনপ্রিয়তাই সে সময়ের চলচ্চিত্রের গতিধারাটাই পাল্টে গিয়েছিলো, ওদর দেখানো পথ ধরেই বাংলা চলচ্চিত্র পেলো ওমর সানী(১৯৯২) সালমান শাহ(১৯৯৩)মৌসুমী(১৯৯৩) আমিন খান১৯৯৩) শাবনূরদের(১৯৯৩) মতো তারকাদের, যাই হোক….’চাঁদনী’ ছবির অভাবনীয় সাফল্যে শাবনাজ তখন লাখো তরুনদের ক্রেজ, শাবনাজের নতুন কোন ছবি মানেই যেনো হলে তাদের হুমড়ি খেয়ে পড়া, শুধু সিনেমার ক্ষেত্রেই না শাবনাজের ভিউকার্ড কিনতেও যেনো এক ধরনের প্রতিযোগিতা লেগে যেতো ভক্তদের মধ্যে, শাবনাজ জন্মগ্রহন করেন ২৯-অক্টোবর ঢাকার মুন্সিগজ্ঞে, তিন বোনের মধ্যে শাবনাজ ছিলেন সবার বড়, এইচ এস সি পর্যন্ত পড়া লেখা করেই চলচ্চিত্রের সাথে যুক্ত হয়ে পড়েন, পিতা স ম হুমায়ুন সাহেব একজন নাট্য শিল্পি হিসেবে পরিচিত ছিলেন, গুনী পরিচিলক আজিজুর রহমানের সাথে তার পরিচয় থাকার সুবাদে পরিচালক এহতেশাম-এর ‘চাঁদনী’ ছবির মাধ্যমে শাবনাজ নায়িকা হন, যার পরর্বতিতে শুরু হয় এক সফল অভিনেত্রীর পথচলা, একে একে দিতে থাকেন ‘দিল’ ‘আজকের হাঙ্গামা’ ‘সোনিয়া’ ‘চোখে চোখে’ ‘অঞ্জলী’ ‘লাভ’ ‘সাক্ষাৎ’ ‘জিদ’ ‘অনুতপ্ত’ ‘টাকার অহংকার’ ‘রাগ অনূরাগ’ ‘আশা ভালোবাসা’ ‘তপস্যা’ ‘প্রেমের সমাধী’-এর মতো সফল সব চলচ্চিত্র, শাবনাজ তার তূমুল জনপ্রিয়তায় থাকা ক্যারিয়ারের মধ্য গগনে সহকর্মী নায়ক নাঈমকে বিয়ে করেন, ১৯৯৬ সালে সিনেমার রুপালী পর্দার জুটি এবার বাস্তবের জুটি হয়ে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন, অবশ্য ততদিনে তারা পর্দার জুটি হয়ে মোট ১২-টি ছবি করে ফেলেছেন, তবে মজার বিষয় হলো বিয়ের পর তারা কেবল মাত্র একটি ছবিতে জুটি হয়ে অভিনয় করেছিলেন তাও তাদের বিয়ের পাঁচ বছর পর আজিজুর রহমান পরিচালিত ‘ঘরে ঘরে যুদ্ধ'(০৯/০২/২০০১) ছবিটিতে, সংসারে প্রতি মনোনিবেশ করায় শাবনাজ পরর্বতিতে চলচ্চিত্রে তেমন আর সময় দিতে পারেননি, ফলে আস্তে আস্তে চলচ্চিত্র জগৎ থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিয়ে যান তিনি, তবে চলচ্চিত্র থেকে বিদায় নেয়ার আগে করে গেছেন প্রায় ৩0টির মতো ছবি, যার বেশির ভাগই ছিলো সফল, পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও, ১৯৯৬ সালে ‘নির্মম’ চলচ্চিত্রে অনবদ্য অভিনয়ের গুনে তাকে এই পুরস্কারে সন্মানীত করা হয়!শাবনাজের সর্বশেষ অভিনীত চলচ্চিত্রটি ছিলো আজিজূর রহমান পরিচালিত ‘ডাক্তার বাড়ী'(১৩/০৭/২০০৭) ছবিটি, বর্তমানে সুখী দম্পত্তি শাবনাজ-নাঈমদের সংসারে দুটি কন্যা সন্তান-রয়েছে!

এক নজরে শাবনাজ অভিনীত কিছু জনপ্রিয় গানের তালিকাঃ

বন্ধুর বাঁশি বাজেরে আমার কানে কানে-চাঁদনী
কন্যার বয়স যে ষোল প্রাত্রী উনিস বছরের-চাঁদনী
কতদিন পরে দেখা হলো দুজনাতে-চাঁদনী
চোখেতে চোখ রেখে দিলকে চিনে নাও-দিল
তোমায় আপন করে-দিল
চোখে চোখ রেখে পাগল করেছো তুমি-চোখে চোখে
আমার মাঝে আমিতো নেই-চোখে চোখে
বড় মিষ্টি লাগে তুমি কাছে এলে-চোখে চোখে
পাগগ এ মন মানেনা-চোখে চোখে
আমারে কি ভুইলা গেছ পরাণের বন্ধু-প্রেমের সমাধি
জীবনের নৌকা চলে-প্রেমের সমাধি
কেন ডাকো বাঁশিতে আমায়-বিশের বাঁশি
এলোমেলো বাতাসে উড়িয়েছি শাড়ির আঁচল- আগুন জ্বলে
তুমি এসেছিলে পরশু-অনুতপ্ত
মনের সুতায় বোনা প্রেমেরও জালে-অনুতপ্ত
তোমার নাম লিখে দাও-অনুতপ্ত
গীতি আমার গীতি -তপস্যা
তোমারে যে ভালোবাসি-তপস্যা
এই বুকে লেখা আণ্জুমান-আণ্জুমান
তোমাকে দেখলে একবার-অঞ্জলী
লোকে বলে পাগলামী আমি বলি ভালোবাসা-অঞ্জলী
আমার নয়ন করে রাখব তোমায়-প্রতিশ্রুতি
তুমি শুধু তুমি তোমাকেই ভালোবাসলাম-বদসুরত
আমার ভালোবাসা সত্যি যদি হয়-জনম জনম
তোমাকে দেখলে একবার-জনম জনম
আরো আগে কেন এলেনা-আশা ভালোবাসা
ব্যাথা বড় ভালো লাগে যদি তুমি দাও-আশা ভালোবাসা
তুমি একটা চোর-মায়ের অধিকার
সুন্দর মেয়ে কাছে এলে প্রেমেতো পড়বেই পুরুষ-সোনিয়া
এক নজরে শাবনাজ অভিনীত চলচ্চিত্র সমূহঃ
১) চাঁদনী (০৪/১০/১৯৯১)
২) দিল
৩) আজকের হাঙ্গামা
৪) সোনিয়া
৫) চোখে চোখে
৬) অঞ্জলী
৭) লাভ
৮) সাক্ষাৎ
৯) জিদ
১০) অনুতপ্ত
১১) টাকার আহংকার
১২) বিষের বাঁশী
১৩) আগুন জ্বলে
১৪) ফুল আর কাঁটা
১৫) রাগ অনুরাগ
১৬) আঞ্জুমান
১৭) আশা ভালোবাসা
১৮) তপস্যা
১৯) প্রেমের সমাধী
২০) বদসুরত
২১) নির্মম
২২) মায়ের অধিকার
২৩) চিরশত্রু
২৪) আশার প্রদীপ
২৫) দেশদ্রোহী
২৬) প্রতিশ্রুতি
২৭) একটি সংসারের গল্প
২৮) ঘরে ঘরে যুদ্ধ
২৯) জনম জনম
৩০) ডাক্তার বাড়ী (১৩/০৭/২০০৭)!
(এডিট পোষ্ট)
বি: দ্র:- পোষ্টটি হাসান আবীর ভাইয়ের লেখনি

Views All Time
Views All Time
159
Views Today
Views Today
1

Comments

comments

Author: cinemanewsbd

রিয়াদ তানভির রাজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *