ঝিনাইদহে নববধূর মৃত্যু; ফের ভুল চিকিৎসার অভিযোগ একই ক্লিনিকের বিরুদ্ধে

ওয়াহিদ হাসান শিশির, মহেশপুর, ঝিনাইদহঃ

মানুষের মাঝে দেখা দিচ্ছে যেমন বিভিন্ন রোগ বালায়ের প্রাদুর্ভাব, তেমনি দেশের আনাচে-কানাচে সুচিকিৎসার অজুহাতে বেড়েই চলেছে ‘ক্লিনিক’ নামক একধরনের ব্যবসা । ক্ষেত্রবিশেষে সুচিকিৎসা পেলেও এর অধিকাংশগুলোতেই সুচিকিৎসার নামে দিচ্ছে অপচিকিৎসা । এতে কর্তৃপক্ষ লাভবান হলেও একদিকে যেমন ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে ভুক্তভোগী রোগীদের পরিবার, অন্যদিকে বেড়েই চলেছে অকালমৃত্যু- ঝরে পড়ছে তাজা প্রাণ ।
এমনই এক অভিযোগ উঠেছে ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী ভৈরবা বাজারের ”সজীব প্রাইভেট হাসপাতাল এন্ড ক্লিনিক” -নামক একটি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ।

গত ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ঝিনাইদহের মহেশপুরে ভুল চিকিৎসায় এক গৃহবধুর মর্মান্তিক/অকাল মৃত্যু হয়েছে‌‌ ।

জানা যায়, উপজেলার যাদবপুর ইউনিয়নের জলুলী দোহারপাড়া নামক গ্রামের মোঃ জয়নাল আহমেদ’র মেয়ে ও পার্শ্ববর্তী বেতবাড়ীয়া গ্রামের মোঃ রবিউল ইসলামের ছেলে মোঃ শিমুলের স্ত্রী তিশা খাতুন (১৮)। এপেন্ডিসাইটিস অপারেশনের জন্য গত ৬ই সেপ্টেম্বর শুক্রবার সন্ধ্যায় ভর্তি হন স্থানীয় ”সজীব প্রাইভেট হাসপাতাল এন্ড ক্লিনিক”-এ। রোগীর অপারেশন করেন খুলনা মেডিকেলের ‘বিতর্কিত’ ডাঃ মোঃ সোহেল রানা। অপারেশনের পরের দিন থেকে রোগীর পেটে তীব্র ব্যথা অনুভব করে, সাথে বমি হয় । ৫ দিন পর ক্লিনিক থেকে রিলিজ করে দিলে বাসায় নেওয়ার পর রোগীর পেট মারাত্মক ভাবে ফুলতে শুরু করে এবং শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটে । এমতাবস্থায় তার পরিবারের লোকজন মহেশপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তারদের পরামর্শ অনুযায়ী উন্নত চিকিৎসার জন্য যশোর সদর হাসপাতালে নিয়ে যায় । শেষমেশ গত ১৯শে সেপ্টেম্বর যশোর কুইন্স হসপিটালে চিকিৎসা নেবার আগেই রোগীর মৃত্যু ঘটে।

এব্যাপারে মৃত তিশার বাবা জয়নাল আহমেদ বলেন, ”প্রথম থেকেই আমাদের সন্দেহ ছিল অপারেশন ঠিকঠাক হয়নি। যশোর কুইন্স হাসপাতালের রিপোর্ট অনুযায়ী পেটের ভিতর মলদ্বারের নাড়ি কাটা ছিল, যার ফলে ইনফেকশন হয়ে তিশার মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে।”

তিশার ভাই মোঃ সোহাগ জানায়, “ক্লিনিকের ম্যানেজার ও মালিকের কাছে জানালে তারা অস্বীকার করে ও একপ্রকার হুমকি দিয়ে বিভিন্ন গুন্ডাপান্ডার ভয় দেখায়।”

আর এতেই ভুক্তভোগী পরিবার ও এলাকাবাসীর সন্দেহের তীর এখন ক্লিনিক কর্তৃপক্ষের দিকে ।

কারণ, এর আগেও এমন অভিযোগ আছে ঐ ক্লিনিকের বিরুদ্ধে ।
খোজ নিয়ে জানা যায়, এবছর গত ১১ই জানুয়ারি মৌসুমি খাতুন (২২) নামের এক প্রসূতির মৃত্যু ঘটেছে ঐ ক্লিনিকে ভুয়া অপারেশনের কারণে । তখনও অপারেশন করছিলেন ডাঃ সোহেল রানা । এছাড়া এমন অসংখ্য অভিযোগ রয়েছে ক্লিনিক’টির বিরুদ্ধে ।

এব্যাপারে উক্ত ক্লিনিকের মালিক মোঃ সামাউল ইসলামের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করতে গেলে তাঁর নাম্বার বন্ধ থাকার কারণে সম্ভব হয় নি ।

Views All Time
Views All Time
109
Views Today
Views Today
1

Comments

comments

Author: cinemanewsbd

রিয়াদ তানভির রাজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *